১০০ শয্যার পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা সেন্টার হচ্ছে চমেকে
prottashitoalo
Prottashitoalo

১০০ শয্যার পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা সেন্টার হচ্ছে চমেকে

0 ২৭

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে, বাংলাদেশে প্রতি বছর দেশে ক্যান্সারে মারা যায় দেড় লাখ মানুষ। ক্যান্সারজনিত মৃত্যু হার সাড়ে সাত শতাংশ। ২০৩০ সালে এই হার ১৩ শতাংশে পৌঁছাতে পারে।

ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও দেশে ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্রে রয়েছে মাত্র ২৬টি। যেখানে চিকিৎসা নিতে পারবেন মাত্র ৫০ হাজার রোগী। এর মধ্যে আবার দশটি বেসরকারি। যেগুলোতে চিকিৎসার খরচ ব্যয়বহুল।

এমন বাস্তবতায় ক্যান্সার রোগীদের সেবা নিশ্চিত করতে বিভাগের সামনের ৩০ কাঠা জায়গায় গড়ে তুলতে যাচ্ছে ১৭ তলার বিশেষায়িত ক্যান্সার চিকিৎসা কেন্দ্র। ১০০ শয্যার এ ক্যান্সার কেন্দ্র থাকবে গুরুত্বপূর্ণ চারটি রেডিওথেরাপি মেশিন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের (চমেক) রেডিওথেরাপি বিভাগীয় প্রধান ডা. সাজ্জাদ মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, স্থাপনা দরকার যেখানে আমরা চিকিৎসা ঠিকমতো দিতে পারবো। তবে মাল্টিডিসিপ্লিন হলে আরো ভালো হয়; যেখানে সবকিছু সুবিধা পাবো।

আরো পড়ুন: শিশুকে কি বোতলে দুধ খাওয়ান?

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের রিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ুন কবীর বলেন, তিন চার বছর আগ থেকেই এ প্রস্তাবনাটি রেডি ছিলো। এখানে জায়গাও নির্ধারণ করা হয়েছে। সবকিছুই রেডি করা আছে এখন শুধু কাজ শুরুর অপেক্ষায় আছি।

চমেক রেডিওথেরাপি বিভাগীয় প্রধান ডা. সাজ্জাদ মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, হাসপাতালের আঙ্গিনায় হলে রেডিওথেরাপি মেশিনের তেজস্ক্রিয়তার প্রভাব অন্য রোগীদের ওপর পড়বে এমন যে অভিযোগ করা হয়েছে এটা সঠিক না।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম বিভাগের ৩ কোটি মানুষের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেলে ক্যান্সার বিভাগ। এখানে প্রতিদিন রোগী আসে দেড়’শো থেকে দুশোর মতো। অথচ শয্যা আছে মাত্র ৪০টি। এতে রোগীর চাপের কারণে হিমশিম খেতে হয় ক্যান্সারের চিকিৎসা সেবা দিতে।

web site
Comments
Loading...