Prottashitoalo

সৌরভ গাঙ্গুলিকে জরিমানা

0 3

জমি সংক্রান্ত একটি মামলায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলিকে জরিমানা করল কলকাতা হাই কোর্ট। আদালতের নির্দেশ, টোকেন হিসেবে ১০ হাজার টাকা করে দিতে হবে সৌরভ ও তাঁর সংস্থাকে। একইসঙ্গে এই মামলায় জমি দেয়ার ক্ষেত্রে নিয়ম না মানায় রাজ্য সরকার ও জমিদাতা হিডকোকেও ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে আদালত। জরিমানার ওই টাকা রাজ্য লিগ্যাল সার্ভিসেস অথরিটির কাছে জমা দিতে হবে বলে খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

সংবাদমাধ্যমটির খবরে বলা হয়, স্কুল তৈরির জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের কাছ থেকে নেয়া জমি আগেই ফিরিয়ে দিয়েছেন সৌরভ। কিন্তু তাঁকে সরকারি সংস্থা হিডকো যেভাবে জমি দিয়েছিল সেই পদ্ধতি নিয়ে একটি মামলা দায়ের হয় কলকাতা হাই কোর্টে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সেই মামলার রায়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চের রায়ে বলা হয়েছে, সৌরভকে বেআইনিভাবে জমি দিয়েছে হিডকো। জমি সংক্রান্ত এই মামলায় সুপ্রিম কোর্টের যে রায় রয়েছে তা-ও মেনে চলা হয়নি। তার ফলেই ওই জরিমানা।

জমি নিয়ে বিতর্ক শুরু হওয়ার পরে ২০২০ সালের অগস্টে রাজ্য সরকারের থেকে পাওয়া জমি ফিরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই সফল অধিনায়ক।

জানা যায়, নিউ টাউনে সিটি সেন্টার ২-এর কাছে ওই জমিতে (প্লট নং আইআইডি-২৯২০/১) দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত আইসিএসই বোর্ডের অনুমোদিত স্কুল করতে চেয়েছিলেন সৌরভ। সেই কারণে হিডকোর তরফ থেকে তাঁকে জমি দেয়া হয়। সেই জমি নিয়েই মামলা ঠুকে দেয় বিধাননগরের ‘হিউম্যানিটি’ নামে একটি সংস্থা।

মামলা চলার মধ্যেই জমি ফিরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন সৌরভ। নবান্নে গিয়ে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে জমি ফেরতের চিঠি দিয়ে আসেন ‘গাঙ্গুলি এডুকেশন অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার সোসাইটি’-র প্রেসিডেন্ট সৌরভ। তবে অভিযোগ ওঠে যে, ওই জমি দেয়ার জন্য কোনও দরপত্র ডাকা হয়নি।

২০১১ সালে সৌরভকে আবারও ২.৫ একর জমি দেয়া হয় নিউটাউন অ্যাকশন এরিয়া-৩ এলাকায়। মামলাকারীর পক্ষের আইনজীবী অনিন্দ্য লাহিড়ীর দাবি, ওই জমির দাম প্রায় ১০ কোটি টাকা। কিন্তু সৌরভ রাজ্যকে একটি চিঠি লিখে দাম কমানোর কথা বলেন। এরপরে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে জমির দাম ৪৫ শতাংশ কমিয়ে দেয়া হয়। আরও অভিযোগ, আইনি বিতর্ক এড়াতে ওই এলাকায় সৌরভ জমি ফেরত দিয়ে দেন।

পরে ফের একটি চিঠি লিখে সৌরভ আর্জি করেন, অ্যাকশন এরিয়া তিন-এর বদলে ওই একই দরে অ্যাকশন এরিয়া দুই-এ জমি দেয়া হোক। সরকারি সংস্থা হিডকো তথা রাজ্য সরকার সেটাও মেনে নেয়।

মূলত এর বিপক্ষেই মামলাটা দায়ের হয় কলকাতা হাই কোর্টে। সেখানে দাবি করা হয়, এ ক্ষেত্রেও বিনা দরপত্রে এবং কম দামে সৌরভকে জমি দেয়া হয়েছে। এই আইনি বিতর্কের পর ওই জমিটিও ফেরত দিয়ে দেন সৌরভ। কিন্তু মামলাটি এত দিন বহাল ছিল। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) তারই নিষ্পত্তি হলো বলা যায়।

Comments
Loading...