সেলফিতে আসক্তি প্রভাব ফেলতে পারে সম্পর্কে
prottashitoalo
Prottashitoalo

সেলফিতে আসক্তি প্রভাব ফেলতে পারে সম্পর্কে

0 ২৫

একটা স্মার্ট হাতে থাকলেই একের পর এক তুলতে থাকেন সেলফি। বিভিন্ন পোজ দিয়ে সেলফি তুলতে তুলতে সময়টাই পার করে দেন। ভরিয়ে ফেলছেন ফোন মেমোরি আর সোশ্যাল মিডিয়া। সেলফি তোলাটা আপাতভাবে বেশ নির্দোষ বলে মনে হলেও বাড়াবাড়ির একটা সীমা থাকা উচিৎ। নাহলে প্রভাব পড়তে পারে সম্পর্কেও।

শুধু আশঙ্কা নয়! ২০১৬ সালে ফ্লোরিডা স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে একটি স্টাডি প্রকাশিত হয়। তাতে বলা হয়েছে, যাঁরা খুব ঘন ঘন সোশাল মিডিয়ায় সেলফি পোস্ট করেন, তাঁদের নিজের নিজের রোমান্টিক পার্টনারদের সঙ্গে প্রায়ই ঝামেলা-ঝঞ্ঝাটে জড়িয়ে পড়েন। সোশাল মিডিয়ায় দেওয়া সেলফির তলায় জমে যাওয়া লাইক আর কমেন্ট নিয়েও ঈর্ষায় ভোগেন অনেকে। কীভাবে বুঝবেন অতিরিক্ত সেলফি-প্রীতি আপনাদের সম্পর্কেও থাবা বসাচ্ছে কিনা?

পার্টনার যখন খুঁজতে শুরু করে ছবিল লাইক কমেন্ট:
সম্পর্কের ভিত নড়বড়ে হওয়ার এই শুরু! যখনই কোনও পার্টনার উপুড় হয়ে অন্যজনের সেলফির নিচে কে কী কমেন্ট করেছে খুঁজতে শুরু করবেন, ওখানেই সমস্যার গোড়াপত্তন! তা ছাড়া একজন পার্টনার নিজের খুব কেতাদুরস্ত ঝকঝকে ছবি পোস্ট করতে শুরু করলে অন্যজন ঈর্ষার শিকার হয়ে পড়তে পারেন। তা থেকে পরে বড়ো সমস্যা দেখা দেওয়া মোটেই অসম্ভব নয়!

সঙ্গীর প্রতি অমনোযোগী হয়ে পড়া
ধরা যাক আপনি আর আপনার পার্টনার একসঙ্গে কোথাও বেড়াতে গেছেন! সেখানে পুরো সময়টা যদি আপনি বা আপনার পার্টনার শুধু সেলফি তুলতেই ব্যস্ত থাকেন, তা হলে পরস্পরের প্রতি মনোযোগটা দেবেন কখন? সেলফির কারণে রোমান্সে ঘাটতি পড়তেই পারে এবং তা থেকে একসময় সম্পর্ক ভেঙে যাওয়াটাও অস্বাভাবিক নয়!

আরো পড়ুন: আজব শর্ত! এই শহরে বাস করতে অ্যাপেনডিক্স বাদ দিতে হবে

নিজের প্রতি মোহগ্রস্ত
সারাক্ষণ নিজেই নিজের প্রতি মোহগ্রস্ত হয়ে থাকা অর্থাৎ নার্সিসিজমই কিন্তু সেলফিতে ডুবে থাকার কারণ! কোনও একজন পার্টনার যদি সবসময় নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত থাকেন, তা হলে সম্পর্কটায় দেওয়ার মতো ইচ্ছে বা সময় কোনওটাই তাঁর থাকবে না। এর সঙ্গে যদি নিজের চেহারা নিয়ে আত্মবিশ্বাসে ঘাটতি থাকে, তা হলে সমস্যার শিকড় রয়েছে আরও গভীরে। সব মিলিয়ে প্রেমের সম্পর্ক মসৃণভাবে না চলারই কথা।

web site
Comments
Loading...