Prottashitoalo

শ্রীলঙ্কাকে এখনই আর্থিক সাহায্য সম্ভব নয়: বিশ্ব ব্যাংক

0 12

দুঃসময় আর কাটছে শ্রীলঙ্কার। দেশ ছেড়েছেন দ্বীপরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। নতুন করে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা চলছে। এই পরিস্থিতিতে ফের খারাপ খবর। কঠিন পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে বিশ্ব ব্যাংকের দিকেই নজর ছিল সকলের। কিন্তু এবার বিশ্ব ব্যাংকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই পরিস্থিতিতে এখনই নতুন করে শ্রীলঙ্কাকে সাহায্য করা সম্ভব হচ্ছে না। নিঃসন্দেহে এর ফলে নতুন করে বিপদে পড়তে হল শ্রীলঙ্কাকে।

বিশ্ব ব্যাংকের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক পরিস্থিতিকে শোধরাতে হলে পরিকাঠামোগত সংস্কার ছাড়া উপায় নেই। আর সেই সংস্কার যতদিন না হচ্ছে, ততদিন নতুন করে আর্থিক সাহায্য করার উপায় নেই বিশ্ব ব্যাংকের।

তবে সেই সঙ্গে বিশ্ব ব্যাংক আরো জানিয়েছে, ওষুধ, রান্নার গ্যাস থেকে স্কুলের পড়ুয়াদের খাবার, দরিদ্র পরিবারের জন্য নগদ সাহায্য়ের মতে পদক্ষেপগুলি করতে বর্তমান ঋণের অধীনেই চেষ্টা করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত এরমধ্যে অন্তত ১৬০ মিলিয়ন ডলার বিপদকালীন প্রয়োজনীয়তা মেটাতে বিতরণ করা হয়েছে। অর্থাৎ এই ধরনের আর্থিক সাহায্য বজায় থাকবে। তবে তা সত্ত্বেও শ্রীলঙ্কার সামগ্রিক পরিস্থিতির বদল ঘটার যে সম্ভাবনা এখনই নেই, তাও পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে।

আরো পড়ুন: রাষ্ট্রপতি পদে শপথ নিলেন দ্রৌপদী মুর্মু

উল্লেখ্য, চরম অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মুখে শ্রীলঙ্কা। ধুঁকছে দ্বীপরাষ্ট্রের অর্থনীতি। একদিকে চীনের কাছ থেকে নেয়া চড়া সুদের বিপুল ঋণ, অন্যদিকে শিল্প সংকটের মধ্যে পড়ে হাঁসফাঁস অবস্থা দ্বীপরাষ্ট্রের। গত তিন মাসে আর্থিক সংকট তীব্রতর হয়েছে দ্বীপরাষ্ট্রে।

জানা গিয়েছে, সংসার চালাতে দেহ ব্যবসায় নামছেন মহিলারা। রাজধানী কলম্বোয় ছাতার মতো গজিয়ে উঠছে নিষিদ্ধপল্লি। শ্রীলঙ্কার চরম আর্থিক সংকটে পরিবারকে বাঁচাতে নিষিদ্ধ এই পেশাকেই আঁকড়ে ধরছেন মহিলারা। শুধু টাকা নয়, প্রয়োজনীয় সামগ্রী, ওষুধ কিনতে শরীর বিক্রি করছেন তারা। তাই এই ভয়াবহ সমস্যা সমাধানের উপায় বের করাই এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বিক্রমসিংহে-গুণবর্ধনেদের কাছে। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

Comments
Loading...