Prottashitoalo

রিমান্ড শেষে কারাগারে রফিকুল ইসলাম ‘মাদানী’

0 28

সাত দিনের রিমান্ড শেষে রফিকুল ইসলাম ‘মাদানী’কে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। গত ২২ এপ্রিল, ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সুফিয়ান মোহাম্মদ নোমানের ভার্চুয়াল আদালতে মতিঝিলের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় তাকে রিমান্ড নেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এই মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরপর আদালতকে অবহিত করা হয়, সম্প্রতি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে রাজধানীতে বাংলাদেশ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের মিছিল বের করে। এ মিছিল থেকে পুলিশের ওপর হামলা চালানো হয়। হামলার একপর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষের ঘটনায় মতিঝিল থানায় করা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে রিমান্ডে নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ। এ মামলায় গত ২১ এপ্রিল ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সুফিয়ান মোহাম্মদ নোমানের ভার্চুয়াল আদালত শুনানি শেষে তার চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ২১ এপ্রিল, সকালে বিস্ফোরক মামলায় রফিকুল ইসলামের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ময়মনসিংহের অতিরিক্ত চিপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আব্দুল হাই।

১৫ এপ্রিল রফিকুল ইসলামের দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে গাজীপুরের আদালত। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে র‌্যাবের করা মামলায় তার সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে গাজীপুর আদালতে আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত তার দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

আরো পড়ুন:- দ্বিতীয় ডোজ নিলেন ৩৩ লক্ষাধিক মানুষ

গত ৮ এপ্রিল নেত্রকোনার নিজ বাড়ি থেকে আটকের পর গাছা থানায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এরপর থেকে তিনি কাশিমপুর কারাগারে রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে একই আইনে গাজীপুরের বাসন থানায় আরেকটি মামলা হয়েছে।

Comments
Loading...