Prottashitoalo

রক্তদানে কমে হৃদ‌রোগের আশঙ্কা

0 13

এখনো রক্তদান নিয়ে নানা মানুষের মধ্যে নানা সংশয়। রক্ত দেয়ার আগে বহু মানুষ ভাবনায় পড়ে যান, কাজটা ঠিক হচ্ছে তো? সাধারণত, একজনের দেহ থেকে একবারে এক ইউনিট রক্ত নেয়া হয়। এই রক্তদাতার দেহে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পুনরায় তৈরি হয়ে যায়। এর ফলে দাতার কোনো ক্ষতি হয় না। তবে ইচ্ছা থাকলেও যে কেউ রক্ত দিতে পারবেন, তা নয়। বিশেষ কোনো রোগের ক্ষেত্রে বা হেপাটাইটিস বি, রেবিজ টিকা নেয়ার পর ছ’মাস রক্তদান করা উচিত নয়।

রক্তদান করলে আপনি যেমন এক জনের প্রাণ বাঁচাতে পারেন তেমনই রক্তদান করা আপনার শরীরের পক্ষেও দারুণ উপকারী। রক্তদানের পরে শরীরের কোনো ক্ষতি হয় না। বরং রক্তদান করলে বেশ কিছু লাভ হতে পারে বলে জানিয়েছে গবেষণা। দেখে নেয়া যাক সেগুলি কী কী-

হৃদরোগের আশঙ্কা কমে: আমেরিকার কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সমীক্ষা বলছে, যারা নিয়ম মেনে নির্দিষ্ট সময় অন্তর রক্তদান করেন, তাদের হৃদরোগের আশঙ্কা কমে। যারা সারা জীবনে কখনো রক্তদান করেননি তাদের হৃদযন্ত্রের তুলনায়, যারা রক্তদান করেন তাদের হৃদযন্ত্র অনেক বেশি সুস্থ থাকে।

আরো পড়ুন: করোনা আক্রান্তদের শরীরে আয়রন ঘাটতি নতুন বিপদ ডেকে আনতে পারে?

ক্যান্সারের আশঙ্কাও কমে: পরিসংখ্যান বলছে, যারা নিয়মিত রক্তদান করেন, তাদের ফুসফুস, অন্ত্র, গলার ক্যান্সারের আশঙ্কা কমে। রক্তদান করলে শরীরে অতিরিক্ত আয়রন জমতে পারে না, তাই ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে।

বয়সের ছাপ কমে: যারা নিয়মিত রক্তদান করেন, তাদের শরীরে বয়সের ছাপও কম পড়ে। ত্বক অনেক টানটান থাকে। শরীরে মেদও জমে কম।

ক্যালোরি ঝরে: এক বার রক্তদান করলে সাধারণত তিন মাসের ভিতরে আর রক্তদান করা যায় না। কিন্তু চার-পাঁচ মাস অন্তরও যদি কেউ রক্তদান করেন, প্রতিবারই বিনা পরিশ্রমে ঝরিয়ে ফেলতে পারেন ৬৫০ ক্যালোরি। এমনই বলছে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Comments
Loading...