Prottashitoalo

ফের ঢাবির অনলাইন ভর্তি আবেদন শুরু

0 ১৬

গত ৮ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষ ভর্তি কার্যক্রমের আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়। আবেদন শুরুর পর সন্ধ্যা ৭টা থেকে সমস্যা শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে। ফলে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ করা হয়। বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুর পৌনে ১টা থেকে রবিবার (১৪ মার্চ) রাত ৮টা পর্যন্ত এ কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় ঢাবি অনলাইন ভর্তি কমিটি।

আজ রবিবার (১৪ মার্চ) রাত ৮টা থেকে আবারো অনলাইনে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। ভর্তিপ্রক্রিয়া কয়েক দিন বন্ধ থাকায় সময় বাড়ানো হবে বলে জানা গেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আরো পড়ুন: স্বাধীনতার সুবর্ণ-জয়ন্তীতে অংশ নেবেন বিশ্ব নেতারা

মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এবার আবেদনপ্রক্রিয়ার শুরুর দিকেই আগের চেয়ে অনেক গুণ বেশি আবেদন পড়েছে। প্রথম দিকে এত আবেদন আগে কখনো পড়েনি। প্রথম ৪৮ ঘণ্টায় পাঁচ ইউনিটে মোট ১ লাখ সাড়ে ৫ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। ফলে, ওয়েবসাইটের বেশ চাপ পড়েছে। এ কারণেই মূলত এ অবস্থা তৈরি হয়েছে। গতবার পাঁচ ইউনিটে ২ লাখ ৭০ হাজার আবেদন পড়েছিল। এবার হয়তো পাসের হার বেশি, এবার সাড়ে তিন লাখ হতে পারে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক আরো বলেন, ওয়েবসাইটে এখন যে রিসোর্স আছে, তাতে একই সঙ্গে সাড়ে ৪ হাজার জন ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে পারেন। আগামী ৩ দিনে ওয়েবসাইটের সক্ষমতা বাড়ানো হবে। একই সময়ে (অ্যাট এ টাইম) অন্তত ১২ হাজারজন যাতে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে তাদের আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারেন, সে জন্য রিসোর্স বাড়ানো হবে। বিভিন্ন বিভাগ থেকে রিসোর্সগুলো আনা হচ্ছে, এগুলো কনফিগার করে রোববার রাত থেকে আবার আবেদন গ্রহণ করা হবে। মার্চ মাস পর্যন্ত আবেদনের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এখন কারিগরি জটিলতার কারণে যে সময়টুকু নষ্ট হচ্ছে, এপ্রিল মাসে সেই সময়টুকু আমরা যুক্ত করে দেব (বাড়িয়ে দেওয়া হবে)।

তিনি আরো বলেন, ‘যাদের আবেদনে কোনো ভুল হয়েছে, সেগুলো সংশোধনের উপায়ও আসছে। আগে তদন্ত করে আমরা ভুলগুলো শনাক্ত করছি। আশা করি, ওয়েবসাইটের সক্ষমতা বাড়ালে আর সমস্যা থাকবে না। এ ছাড়াও কোনো শিক্ষার্থীর আবেদনে কোনো ধরনের সমস্যা শনাক্ত হলে শিক্ষার্থীদের ফোন করে আমরা যাচাই করে নেব।’

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতির কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে দেশের ৮টি বিভাগীয় শহরে। বিভাগীয় শহরে কেন্দ্র হওয়ার কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ৫টি ইউনিটেই আবেদন ফি ৬৫০ টাকা, যা গতবার পর্যন্ত ছিল ৪৫০ টাকা।

ইন্টারনেটর সুবিধাসংবলিত কম্পিউটার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাডমিশন ওয়েবসাইটের (https://admission.eis.du.ac.bd) মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন বলে জানা গেছে।

web site
Comments
Loading...