Prottashitoalo

ফাইনাল খেলা হলো না বাংলাদেশের

0 3

২০০৫ সালের পর এই প্রথম ফাইনালে খেলার সুযোগ এসেছিল বাংলাদেশের সামনে। স্বপ্নের ফাইনালটা হাতের মুঠো থেকে ফস্কে গেল। শুরুতেই এক গোলে এগিয়ে থাকলেও শেষ হাসি হাসতে পারল না লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র করে ফাইনালের স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে বাংলাদেশের। পেনাল্টি থেকে নেপালের অঞ্জন বিস্টা গোল করলে স্কোরলাইন হয়ে যায় ১-১।

বাংলাদেশের ১৬ বছর পর সাফ ফাইনাল খেলার স্বপ্নও শেষ হয়ে যায় এর মাধ্যমে। রেফারির শেষ বাঁশির সঙ্গে সঙ্গে মালে স্টেডিয়াম পরিণত হয় বাংলাদেশের ট্র্যাজেডিতে। গ্যালারিতে থাকা বাংলাদেশের সমর্থকরাও নিথর দাঁড়িয়ে রইলেন।

ফাইনালে খেলার জন্য বাংলাদেশকে আজ জিততেই হতো। নেপালের প্রয়োজন ছিল ন্যূনতম ড্র। ম্যাচের নবম মিনিটে জামাল ভূঁইয়ার ফ্রি কিকে মাথা ছুঁইয়ে বাংলাদেশকে ফাইনালের পথে এগিয়ে দিয়েছিলেন সুমন রেজা। কিন্তু ৮৬ মিনিটে পেনাল্টি পেয়ে নেপালকে ম্যাচে ফেরান অঞ্জন বিষ্টা। ফাইনালে না উঠতে পারা লিগ পদ্ধতির সাফ শেষ করছে ৫ দলের মধ্যে চতুর্থ স্থানে থেকে।

মূলত ৭৯ মিনিটে দলের সেরা পারফরমার গোলকিপার আনিসুর রহমানের লাল কার্ডই শেষ করে দেয় বাংলাদেশের স্বপ্ন। বাকি সময়ে এক খেলোয়াড় কম নিয়ে লড়াইটা চালিয়ে যাচ্ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ৮৬ মিনিটে রেফারির একটি বিতর্কিত পেনাল্টির সিদ্ধান্তেই সর্বনাশের চূড়ান্ত হয় বাংলাদেশের।

২০০৫ সালের পর থেকে বাংলাদেশ আর কখনো ফাইনাল খেলতে পারেনি। গতবার নিজেদের মাঠে এই নেপালের কাছে হেরেই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল।

Comments
Loading...