Prottashitoalo

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৪৪

0 3

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। চলতি বছরের মার্চ থেকে দেশে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়। আগস্ট থেকে করোনা সংক্রমণ কমতে শুরু করে। সংক্রমণ কমে আসায় প্রায় দেড় বছর পর গত সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল-কলেজ খুলে দেয়া হয়। খুলে দেয়া হয় মেডিকেল কলেজও।

এদিকে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও পাঁচজন মারা গেছেন। তাদের সকলেই পুরুষ ও সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২৭ হাজার ৯৩৯ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত পাঁচজনের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব একজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব তিনজন ও সত্তরোর্ধ্ব একজন রয়েছেন। বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যানে দেখা গেছে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে তিনজন, চট্টগ্রামে একজন এবং রংপুর বিভাগে একজনের মৃত্যু হয়।

আরো পড়ুন: ‘ঢাকা-গ্লাসগো ঘোষণা জলবায়ু কূটনীতিতে বাংলাদেশের অগ্রণী

সর্বশেষ গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় নতুন ২৪৪ জন রোগী শনাক্ত হয়। এ নিয়ে সর্বমোট শনাক্ত হওয়া করোনা রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৭৩ হাজার ৪৫৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার এক দশমিক ২৫ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর স্বাক্ষরিত করোনা পরিস্থিতি সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

১৮ নভেম্বর পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার তুলনায় করোনা রোগী শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৭৭ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি ও বেসরকারি ৮৩৬টি ল্যাবে ১৯ হাজার ৫৭০টি নমুনা সংগ্রহ ও ১৯ হাজার ৫০৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করতে এক কোটি ৬ লাখ ৭৩ হাজার ৪৩১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৯৪ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠা রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৩৭ হাজার ৫১৮ জন। সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭২ শতাংশ।

Comments
Loading...