Prottashitoalo

ডিউক ডায়েট কি? কি কি খাওয়া যায় তাতে?

0 20

ডায়েট মানে কি না খেয়ে থাকা বা কোনো বেলার খাবার বাদ দেয়া? একদমই না। ডায়েট মানে কখনোই ক্ষুধার্ত থাকা না। সহজ ভাষায় বলতে গেলে, হিসেব নিকেশ করে খাওয়া দাওয়াকেই বলা যায় ডায়েট। যদি আরোও ভেঙ্গে বলা যায়, তবে ডায়েট হলো খাদ্যগুণ বিবেচনা করে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ খাবার গ্রহণ করা যেন শরীরের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যহত না হয়।

বর্তমানে স্বাস্থ্য সচেতন সবাই কিছু বিশেষ ডায়েট অনুসরণ করেন। তার মধ্যে প্রোটিন ডায়েট অন্যতম। কিন্তু প্রোটিন নির্ভর এই ডায়েটের নাম কি জানেন? বিদেশে এই ধরনের ডায়েট বেশ জনপ্রিয়। নাম ডিউক ডায়েট। এতে সারাদিনের খাদ্য তালিকায় মূলত প্রোটিন থাকে। মাছ, মাংস, ডিম, দুধ নির্ভর এই ডায়েট। আর সঙ্গে থাকে খানিকটা শাক-সব্জি।

তবে আর বাদ রইল কী? সে কথা ভাবছেন? ডিউক ডায়েট করলে কার্বোহাইড্রেট একেবারে ছোঁয়া যাবে না। বাদ দিতে হবে যে কোনো ধরনের মিষ্টিও। এই ডায়েটের নিয়ম হল, পুষ্টিবিদ ১০০টি খাবারের তালিকা দেবেন। তার মধ্যে থেকেই বেছে খাওয়াদাওয়া করতে হবে। তবে কম খাওয়ার কোনো ব্যাপার নেই। বরং অনেকে বলে থাকেন, এমনিতেও এত খাওয়া হয় না, যত ডিউক ডায়েট করলে খেতে হয়। এই ডায়েটের চারটি স্তর আছে। রয়েছে হাজার রকম নিয়ম। ফলে প্রশিক্ষকের সাহায্য ছাড়া এ পথে চলতে নিষেধ করা হয়।

আরো পড়ুন: শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার কারণ ও প্রতিকার

ফরাসি চিকিৎসক পিয়ের ডুকানের সৃষ্টি এই ডায়েট। তার নামেই পরিচিত ওজন ঝরানোর এই নিয়ম। তবে এই ডায়েট নিয়ে কিছু মত পার্থক্যও আছে। শোনা যায়, চিকিৎসকদের সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল তাকে। এই ডায়েট ঘিরে ব্যবসাই ছিল তার বিরুদ্ধে মূল অভিযোগ। ফলে চিকিৎসকদের একাংশ এখনও এই ডায়েটকে সন্দেহের চোখে দেখে। অনেকে বলেন, অতিরিক্ত পরিমাণ প্রোটিন খাওয়ার ফলে কিডনির সমস্যা দেখা দেয়ার আশঙ্কা থাকে।

তবে ডিউক ডায়েটের মূল হল কম ক্যালোরি খাওয়া। ফলে খাবারের থালার অর্ধেক ভরিয়ে দেওয়া হয় হাল্কা ওজনের শাক-পাতা দিয়ে। আর বাকি অর্ধেক থাকে মাছ-মাংসে ভরা। এ ভাবেই ভারসাম্য রক্ষা করার কথা বলা হয় এই ডায়েটে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Comments
Loading...