ব্রাহ্মণবাড়ীয়ায় জীবিত গরুর নাড়ি-ভূড়ি বের করে খেলো কিশোর
prottashitoalo
Prottashitoalo

জীবিত গরুর নাড়ি-ভূড়ি খেলো কিশোর

0 ৫৫

অনেক জীবজন্তু মাংসাশী হয়ে থাকে কারণ এরা কাচা মাংস খায়। মানুষ সব সময় রান্না করা মাংসই খেয়ে থাকে। মাঝে-মধ্যে আন্তর্জাতিক কিছু টিভি চ্যানেলে কাচা মাংস খেতে দেখা যায়। তবে এবার ব্রাহ্মণবাড়ীয়ায় বাস্তবে ঘটল এক আজব ঘটনা। জীবিত গরুর নাড়ি-ভূড়ি বের করে খেয়েছে এক কিশোর (১৮)।

স্থানীয় লোকজন কিশোরটিকে মানসিক রোগী বলে আখ্যায়িত করেছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় সোমবার দুপুরে পৌর এলাকার তারাগনে এ ঘটনা ঘটে। কিশোরের বাবা ক্ষতিগ্রস্ত গরুর মালিককে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তারাগন পশ্চিমপাড়ার মো. আবু তাহের মিয়া সকালে বাড়ির পাশেই খোলা মাঠে নিজের গরুকে ঘাস খাওয়ানোর জন্য রেখে আসেন।  দুপুরে গিয়ে দেখেন গরুটি রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। গরুর পিছন দিকে নাড়ি-ভূড়ি বের হয়ে আছে। এসময় গরুর পাশে থাকা ওই কিশোর দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে ধরে আনলে সে স্বীকার করে যে, গরুর পা বেঁধে পিছন দিক দিয়ে কেটে নাড়ি-ভূড়িসহ ভেতর থেকে বিভিন্ন কিছু বের করে খেয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

গরুর মালিক আবু তাহের মিয়া জানান, কিছুদিন পূর্বে প্রায় ৫০ হাজার টাকায় তিনি গরুটি কিনেছিলেন।

আখাউড়া পৌরসভার ৯নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. মানিক মিয়া বলেন, ‘এটি অবশ্যই একটি দুঃখজনক ঘটনা। ধারণা করা হচ্ছে, ওই ছেলেটি মানসিক সমস্যা রয়েছে। নইলে সে এমন করতে পারে না। ওই ছেলের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে।’

আরো পড়ুন:- ‘রাজপথ আর আন্দোলন বিএনপির এখন অজানা’

আখাউড়া উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা মো. কামাল বাশার সাংবাদিকদেরকে জানান, ঘটনাটি শুনে দ্রুত খোঁজখবর নিতে লোক পাঠানো হয়। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে কিশোর মানসিক রোগী। তাকে চিকিৎসা দেওয়া প্রয়োজন।

web site
Comments
Loading...