Prottashitoalo

ছেলে-মেয়েদের একসঙ্গে লেখাপড়া নিষিদ্ধ করলো তালেবান

0 15

গত দুই দশক ধরে আফগানিস্তানের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছেলে-মেয়েদের একসঙ্গে লেখাপড়া বা ‘কোএডুকেশন’ শিক্ষানীতি চালু ছিল। তবে এখন থেকে সরকারি ও বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে একসঙ্গে লেখাপড়া করতে পারবেন না ছেলে ও মেয়েরা।

গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান দখল নিশ্চিত করার পর হেরাতে প্রথম ফতোয়া জারি করল সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান। গতকাল শনিবার (২১ আগস্ট) ওই প্রদেশের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার পরই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনের নেতৃত্ব, এমনটাই জানা গিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা সূত্রে।

হেরাত প্রদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়-সহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যাপকদের সঙ্গে তিন ঘণ্টার বৈঠকের পর তালেবান নেতা মোল্লা ফরিদ বলেন, ‘সমাজে পচন ধরার মূলেই রয়েছে ছেলে-মেয়েদের একসঙ্গে শিক্ষা। বিকল্প কোনো রাস্তা নেই। ছেলে-মেয়েদের একসঙ্গে লেখাপড়া বন্ধ করতে হবে। মহিলা অধ্যাপকেরা শুধু মাত্র মেয়েদেরই পড়াতে পারবেন’।

আরো পড়ুন: তালেবানের ‘নতুন বন্ধু’ রাশিয়া

আফগানিস্তানে তালেবান-রাজ ফিরতেই হেরাতে ফের পুরনো নীতি চালু করা হল। তালেবান নেতৃত্বের এই সিদ্ধান্তের কারণে সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলির বিশেষ সমস্যা না-হলেও বেকায়দায় পড়বে বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। এমনটাই মত সে দেশের শিক্ষাবিদদের।

প্রসঙ্গত, কাবুল দখলের পর এক সংবাদ সম্মেলনে তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ জানিয়েছিলেন, ১৯৯০য়ের দশকের মতো আফগানিস্তানে নারীদের দমন করা হবে না। আফগানিস্তানে শরিয়া অনুযায়ী নারীদের অধিকার দেয়া হবে। নারীরা আমাদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবেন। তবে ছেলে-মেয়েদের একসঙ্গে লেখাপড়ার বিরুদ্ধে নেয়া তালেবানের পদক্ষেপ অন্য ইঙ্গিত দিচ্ছে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Comments
Loading...