Prottashitoalo

আশা জাগিয়ে হেরে গেল বাংলাদেশ

0 6

শ্বাসরুদ্ধ ম্যাচে বাংলাদেশকে ৪ উইকেটে হারিয়ে ৩ ম্যাচ সিরিজের টি-টোয়েন্টিতে ১-০ তে এগিয়ে গেলো পাকিস্তান। শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) মিরপুরের শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরু হয় দুপুর ২টায়। বাংলাদেশের দেয়া লক্ষ্যমাত্রায় খেলতে নেমে পাওয়ার প্লেতেই পাকিস্তান হারিয়ে ফেলে রিজওয়ান, বাবর, হায়দার ও মালিকদের।

এরপর দলের হাল ধরেন ফখর জামান ও খুশদিল শাহ। পঞ্চম উইকেটে এ দুইজন ৫৬ রানের জুটি গড়েন। দলীয় ৮০ রানে ফখরকে ফেরান তাসকিন। তার আগে ফখর ৩৬ বলে ৩৪ রানের ইনিংস খেলেন। ফখরের বিদায়ের ১৬ রান পর ৩৫ বলে ব্যক্তিগত ৩৪ রান করা খুশদিল শাহকে ফেরান শরিফুল ইসলাম।

খুশদিলের বিদায়ের পর ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত ঠাণ্ডা মাথায় শাদাব খান ও মোহাম্মদ নওয়াজ ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। শাদাব ১০ বলে ২ ছয় ও এক চারে ২১ রান এবং নওয়াজ ৮ বলে ২ ছয় ও এক চারে ১৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। বাংলাদেশের হয়ে তাসকিন ২টি এবং মেহেদি, মুস্তাফিজ ও শরিফুল প্রত্যেকে একটি করে উইকেট পান।

আরো পড়ুন: চিলির পরাজয়ে ২০২২ বিশ্বকাপ নিশ্চিত হলো আর্জেন্টিনার

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ শুরুতেই উইকেট হারায়। দলীয় ৩ রানে নাঈম শেখকে ফেরান হাসান আলী। অভিষিক্ত সাইফ হাসান ফেরেন মোহাম্মদ ওয়াসিমের বলে যখন দলীয় রান ১০। দলীয় ১৫ রানে নিজের বলে নিজেই ক্যাচ ধরে শান্তকে ফেরান ওয়াসিম।

৪০ রানে মোহাম্মদ নাওয়াজ বোল্ড করেন মাহমুদউল্লাহকে। দলীয় ৬১ রানে ৩৪ বলে ৩৬ রান করা আফিফকে ফেরান শাদাব খান। সোহান ২২ বলে ২৮ রান করে দলীয় ৯৬ রানের ফেরেন হাসান আলী দ্বিতীয় শিকার হয়ে।

সপ্তম উইকেট হিসেবে দলীয় ১১০ রানে হাসানের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন আমিনুল ইসলাম। ম্যাচে এটি তার তৃতীয় উইকেট ছিল। শেষ ৮ বলে বাংলাদেশ ১৭ রান যোগ করতে সক্ষম হয়। মেহেদি হাসান ২০ বলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩০ রান করে অপরাজিত থাকেন।

বিশ্বকাপে নিজের ছায়া হয়ে থাকা হাসান এদিন ২২ রান খরচায় তিন উইকেট তুলে নেন। মোহাম্মদ ওয়াসিম ২টি এবং নাওয়াজ ও শাদাব প্রত্যেকে একটি করে উইকেট লাভ করেন।

Comments
Loading...