Prottashitoalo

আফগানিস্তানের হেরাতে বিমান হামলায় তালেবানের ১০০ যোদ্ধা নিহত

0 5

আফগানিস্তানের দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ শহর দখল করার জন্য সরকারি বাহিনীর সাথে তীব্র লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তালেবানের যোদ্ধারা। হেরাত, লস্কর গাহ এবং কান্দাহার- এই তিনটি শহরে রবিবারও সংঘর্ষ অব্যাহত ছিলো।

এদিকে হেরাতে বিমান হামলায় অন্তত ১০০ তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছে। দেশটির সরকারি বাহিনী রোববার এ দাবি করেছে। তবে তালেবানের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, হেরাতে তালেবানের অবস্থান লক্ষ্য করে আফগান ও মার্কিন বিমান হামলা চালানো হয়। এতে অন্তত ১০০ তালেবান নিহত হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিদেশি সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ার পর থেকেই তালেবান বাহিনী আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকা, বিশেষ করে গ্রামাঞ্চল দখল করে নিচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, তালেবান ইতোমধ্যে দেশটির অর্ধেকেরও বেশি এলাকা দখল করে নিয়েছে। পাকিস্তান ও ইরানের সঙ্গে আফগানিস্তানের সীমান্ত চৌকিও এখন তাদের নিয়ন্ত্রণে।

আরো পড়ুন: তুরস্কে ভয়াবহ দাবানলে নিহত ৪, সহযোগিতার ঘোষণা ইরানের

সম্প্রতি আফগানিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোর দখল নিতে সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে হামলা জোরদার করেছে তালেবান। দেশের মফস্বল এলাকাগুলো দখলের পর হেরাত, লস্কর গাহ ও কান্দাহারে তীব্র লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে গোষ্ঠীটি। কান্দাহার বিমানবন্দরে রকেট হামলার পর সবধরনের ফ্লাইট বাতিল করেছে আফগান সরকার।

তবে এই তিনটি শহরের ভবিষ্যৎ শেষ পর্যন্ত কাদের হাতে চলে যায় সেটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সরকারি বাহিনী কতক্ষণ শহর তিনটি ধরে রাখতে পারবে সেটাও অনিশ্চিত। আশঙ্কা করা হচ্ছে, শহরগুলোতে মানবিক সঙ্কটের সৃষ্টি হতে পারে।

জানা যায় লস্কর গাহ শহরের ভেতরে রবিবার তীব্র লড়াই অব্যাহত রয়েছে। এর আগে শনিবার (৩১ জুলাই) বিদ্রোহী যোদ্ধারা গভর্নরের অফিস থেকে মাত্র কয়েকশ মিটার দূরে অবস্থান করছিল। কিন্তু রাত নামার পর তাদেরকে সেখান থেকে হটিয়ে দেয় আফগান সৈন্যরা। যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতায় তালেবানের অবস্থানের ওপর বিমান হামলা চালায় আফগানিস্তানের সরকারি বাহিনী। সরকারি সৈন্যরা দাবি করছে তারা বহু তালেবান যোদ্ধাকে হত্যা করেছে।

Comments
Loading...